Type to search

রান্নাঘরের সিলিংয়ে ঝুলছিল মা-মেয়ের লাশ

মনিরামপুর

রান্নাঘরের সিলিংয়ে ঝুলছিল মা-মেয়ের লাশ

 

এইচ এম জুয়েল রানা : যশোরের মনিরামপুর উপজেলায় একসঙ্গে মা ও তার তিন বছরের মেয়ের ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। শনিবার সন্ধ্যায় উপজেলার কুলটিয়া গ্রামের ফাল্গুন মণ্ডলের বাড়ি থেকে তাদের লাশ একই রশির দুই প্রান্তে ঝুলন্ত অবস্থায় উদ্ধার করে পুলিশ।
ওই গৃহবধূর নাম পিয়া মণ্ডল (২২)। তার মেয়ের নাম অদৃতা মণ্ডল (৩)। পিয়া মণ্ডল মনিরামপুর উপজেলার সুজাতপুর গ্রামের বাসিন্দা ও মশিয়াহাটি ডিগ্রি কলেজের সমাজ বিজ্ঞানের প্রভাষক কনার মণ্ডলের স্ত্রী। তিনি স্ত্রী ও মেয়েকে নিয়ে উপজেলার কুলটিয়ায় ভাড়া থাকতেন।
এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য কনার মণ্ডলকে আটক করেছে পুলিশ।
পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, শনিবার বিকেলে উপজেলার কুলটিয়া গ্রামের কনার মণ্ডলের ভাড়া বাড়ির রান্নাঘরের সিলিংয়ে রশির এক প্রান্তে মা পিয়া মণ্ডল এবং অন্য প্রান্তে মেয়ে অদৃতা মণ্ডলের লাশ ঝুলছিল। প্রতিবেশীরা জানালা দিয়ে লাশ দুটি ঝুলতে দেখে পুলিশে খবর দেয়।
খবর পেয়ে সন্ধ্যায় মনিরামপুর থানা থেকে পুলিশ গিয়ে লাশ দুটি উদ্ধার করে। উদ্ধারের পর রাত আটটার দিকে পুলিশ মরদেহ দুটি থানায় নিয়ে যায়। পুলিশ এ সময় কনার মণ্ডলকে আটক করে।
মনিরামপুর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) শিকদার মতিয়ার রহমান বলেন, পিয়া ও তার মেয়ের লাশ উদ্ধার করে থানায় আনা হয়েছে।

রোববার ময়নাতদন্তের জন্য লাশ দুটি যশোর ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হবে বলে জানান তিনি।
মনিরামপুর সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি) আশিক সুজয় মামুন বলেন, পিয়া মণ্ডলের পরিবারের সদস্যদের থানায় আসতে বলা হয়েছে। তাদের অভিযোগ অনুযায়ী মামলা হবে।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *