Type to search

বিতর্কিতদের বাদ দিতে সংগঠনকে ঢেলে সাজাচ্ছে ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগ

রাজনীতি

বিতর্কিতদের বাদ দিতে সংগঠনকে ঢেলে সাজাচ্ছে ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগ

বিএনপি-জামাতের আন্দোলন মোকাবেলা করা ও আগামী জাতীয় নির্বাচনের বৈতরনী পার হতে প্রস্ততি নিচ্ছে ঢাকা মহানগর উত্তর-দক্ষিণ আওয়ামী লীগ। আন্দোলন ও নির্বাচনমুখী তৎপরতা এবং হাইব্রিড ও বিতর্কিতদের বাদ দিতে নেয়া হয়েছে কর্মপরিকল্পনা।

২০১৯ সালের ৪ঠা ডিসেম্বর ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সম্মেলন করা হয়। উত্তরে বজলুর রহমানকে সভাপতি, এসএম মান্নান কচিকে সাধারণ সম্পাদক করা হয়। দক্ষিণে আবু আহমেদ মান্নাফি সভাপতি ও হুমায়ুন কবিরকে সাধারণ সম্পাদক করা হয়।

প্রায় এক বছর পর দুই মহানগর পুর্নাঙ্গ কমিটি ঘোষণা করে। নির্বাচনী আসন ভিত্তিক সাংগঠনিক দায়িত্বও বন্টন করা হয়েছে। তবে করোনার কারণে সংগঠনে দৃশ্যমান কোনো গতি আনতে পারেনি ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগ। সেপ্টেম্বর থেকে শুরু করেছে ইউনিট, ওয়ার্ড ও থানার সম্মেলন। আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দের উপস্থিতিতে সম্মেলনস্থলেই কমিটি ঘোষণা করা হচ্ছে।

দ্রুত নতুন কমিটি চায় তৃণমূলের নেতা-কর্মীরাও। বিতর্কিতদের বাদ দিয়ে সংগঠনের দায়িত্ব দেয়ার দাবি থানা পর্যায়ের নেতাদের।

তৃণমূলের নেতা-কর্মীরা বলেন, চিহ্নিত জামায়াত কর্মী যারা নাশকতায় জড়িত তাদেরকে কোনভাবেই যাতে সংগঠনের সদস্য করা না হয় সেদিকে সবাইকে সজাগ থাকতে হবে। একটা শ্রেণি আছে যারা দেশে বিশৃঙ্খলা করতে চায় তাদেরকে বঙ্গবন্ধুর আদর্শ দিয়ে আমরা প্রতিহত করব। ভালো কাজ করতে হলে একটা ভালো দল গঠন করতে হবে। হাইব্রিড, চাঁদাবাজ, সন্ত্রাসীরা যদি ভোটের জন্য জনগণের কাছে যায় তাহলে ভোতের ফলাফল উলটা হবে।

বিতর্কিতদের বাদ দেয়া হচ্ছে জানিয়ে নেতারা জানান, যে কোন রাজনৈতিক পরিস্থিতি মোকাবেলায় সংগঠনকে শক্তিশালি করা হচ্ছে। মহানগর কমিটির নেতারাও মনে করেন, সম্মেলন করে কমিটি দিলে সংগঠনে হাইব্রিডদের ঠাঁই হবে না।

ঢাকা মহানগর উত্তরের সাধারণ সম্পাদক এস এম মান্নান কচি বলেন, আগামি জাতীয় নির্বাচনকে সামনে রেখে সংগঠন ঢেলে সাজানো হচ্ছে। নাম প্রস্তাবের মাধ্যমে যেভাবে কমিটি করলে সবার জন্য ভালো হয় আমরা সেভাবেই প্রস্তুতি নিচ্ছি। এতে করে বিতর্কিতরা বাদ পড়বে এবং একটি স্বচ্ছ ও সুন্দর কমিটি দেয়া সম্ভব হবে।

ঢাকায় বিরোধী দল যদি সহিংসতার আশ্রয় নেয় তা কঠোরভাবে মোকাবেলা করার কথা জানান, দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হুমায়ুন কবির। তিনি বলেন, আমাদের দক্ষিণ আওয়ামী লীগ অত্যন্ত শক্তিশালী। আগামীতে আরও শক্তিশালী করা হবে যাতে করে বিএনপি-জামায়াতের যেকোন অপশক্তি আমাদের সামনে আসুক না কেন আমরা যাতে সাংগঠানিকভাবে তাদের পরাজিত করতে পারি।

ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণ আওয়ামী লীগের অধীনে ৪৪টি থানা ও ১৪০টি ওয়ার্ড রয়েছে।সূত্র,ডিবিসি নিউজ

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *