Type to search

‘যাত্রীর অভাবে’ চালু হচ্ছে না বেনাপোল এক্সপ্রেস

যশোর

‘যাত্রীর অভাবে’ চালু হচ্ছে না বেনাপোল এক্সপ্রেস

অপরাজেয়বাংলা ডেক্স

দীর্ঘদিন ধরে বন্ধ রয়েছে বেনাপোল-ঢাকাগামী আন্তঃনগর ‘বেনাপোল এক্সপ্রেস’ ট্রেনটি । পরবর্তীতে যান চলাচলে সব ধরনের নিষেধাজ্ঞা তুলে দেওয়া হলেও এখনো চালু হয়নি ‘বেনাপোল এক্সপ্রেস’।

জানা গেছে, বেনাপোল বন্দর দিয়ে প্রতিদিন ঢাকাসহ দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চল থেকে আসা ৫ থেকে ৬ হাজার পাসপোর্টধারী যাত্রী ভারতে যাতায়াত করে থাকেন। সড়ক পথের বেহাল দশা ও দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া ফেরিঘাটে যানজটের কারণে নানা ধরনের হয়রানির শিকার হতে হয় যাত্রীদের। বেনাপোল-ঢাকা রুটে ট্রেনটি চালু হওয়ার পর কিছুটা স্বস্তি মেলে যাত্রীদের। কারণ ট্রেনে নির্বিঘ্নে সাড়ে সাত ঘণ্টায় বেনাপোলে থেকে ঢাকায় পৌঁছানো সম্ভব। যেখানে পরিবহনে সময় লাগে ১২/১৪ ঘণ্টা। সপ্তাহে এক দিন বিরতি দিয়ে প্রতিদিন সকাল ও রাতে এ লাইনে দুটি ট্রেন চলাচল করে। করোনা দেখা দিলে স্বাস্থ্যবিধি মেনে কয়েকদিন চললেও দ্বিতীয় ঢেউয়ে ট্রেনের চলাচল পুনরায় বন্ধ করে দেওয়া হয়। এরপরে অন্যসব জায়গায় আন্তঃনগর ট্রেন চালু হলেও এখনো বন্ধ রয়েছে বেনাপোল-ঢাকা রুটে ট্রেন চলাচল।

বেনাপোল কাস্টমস সিঅ্যান্ডএফ এজেন্ট অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি মফিজুর রহমান সজন জানান, বেনাপোলের স্থানীয় মানুষ ও ভারতে যাতায়াতকারী পাসপোর্টধারী যাত্রীদের সুবিধার্থে বেনাপোল-ঢাকা রুটে ‘বেনাপোল এক্সপ্রেস’ সার্ভিস চালু করা হয়। করোনায় বন্ধ থাকার পর সব কিছু চালু হলেও এটি চালু না হওয়ায় ভারত-বাংলাদেশ যাতায়াতকারী যাত্রীসহ সাধারণ যাত্রীরা ভোগান্তির শিকার হচ্ছেন। ট্রেনটি চালু হলে বেনাপোল-ঢাকার মধ্যে হাজার হাজার যাত্রীর যাতায়াত সহজ হবে। গতি বাড়বে ব্যবসা-বাণিজ্যে। তিনি দ্রুত এই ট্রেনটি চালুর জন্য বাংলাদেশ রেলওয়ের মহাপরিচালকের কাছে দাবি জানান।

jagonews24

কি কারণে ট্রেনটি চালু হচ্ছে না সে সম্পর্কে জানতে চাইলে বেনাপোল স্টেশন মাস্টার মো. সাইদুজ্জামান বলেন, ‘কর্তৃপক্ষ এখনো কোনো সিদ্ধান্ত নেয়নি। এটা কবে আবার চালু করা হবে তা আমার জানা নেই।’

তবে স্থানীয় ব্যবসায়ীদের ধারণা, ভারতীয় হাইকমিশন পর্যটন ভিসা চালুর পরই ট্রেনটি ছাড়া হবে। এখন চালু করলে যাত্রীর অভাবে বাংলাদেশ রেলওয়ের আর্থিক ক্ষতির আশঙ্কা রয়েছে।

jagonews24

বাংলাদেশ রেলওয়ের মহাব্যবস্থাপক (পশ্চিম) মিহির কান্তি গুহ জানান, দীর্ঘদিন ফেলে রাখায় ‘বেনাপোল এক্সপ্রেস’ আন্তঃনগর ট্রেনের বগি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। বগি মেরামতের জন্য সৈয়দপুরের লোকোশেডে রাখা হয়েছে। খুব শিগগিরেই এই ট্রেন চালু করা হবে।

২০১৯ সালের ১৭ জুলাই গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে বেনাপোল-ঢাকা রুটে আন্তঃনগর ‘বেনাপোল এক্সপ্রেস’ ট্রেন উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এতে সড়কপথে দুর্ভোগ থেকে রেহাই পান অনেক যাত্রী। ঢাকার সঙ্গে রেল যোগাযোগ চালু হওয়ায় বেনাপোল বন্দরে আমদানি-রপ্তানির কাজে নিয়োজিত ব্যবসায়ীদের যাতায়াতও সহজ হয়। পাশাপাশি পাসপোর্টধারী যাত্রীরাও যাতায়াতে স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করেন।সূত্র,জাগোনিউজ২৪.কম

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *