Type to search

মোবাইলে প্রেম; অত:পর ঘর থেকে বের হয়ে সর্বস্ব হারালো কিশোরী

সাতক্ষীরা

মোবাইলে প্রেম; অত:পর ঘর থেকে বের হয়ে সর্বস্ব হারালো কিশোরী

নাজমুল হাসান,তালা(সাতক্ষিরা) প্রতিনিধি ঃ
মোবাইলের মাধ্যমে প্রেমজ সম্পর্ক গড়ে উঠে। অতপর প্রেমের টনে ঘর থেকে বের হয়ে সর্বস্ব হারালো এক কিশোরী। ওই কিশোরী জানায়, বিয়ের প্রোলোভন দেখানো হয়েছিলো তাকে। সুখের সংসার বাঁধার জন্য বাড়ি থেকে পালিয়ে ছিলো সে। ঘটনাটি ঘটেছে গত বুধবার রাতে সাতক্ষিরা জেলার তালা উপজেলার কুমিরা গ্রামে। ওই কিশোরী যশোর জেলার মনিরামপুর উপজেলার লক্ষ্মনপুর গ্রামের মাদ্রাসা পড়–য়া ৯ম শ্রেণির ছাত্রী। সে জানায়,মোবাইল ফোনে পরিচয়ের মাধ্যমে ৪/৫ মাসের মধ্যে মিঠুন, পেশা ড্রাইভার, গ্রাম হাবাসপুর, কেশবপুর, যশোর এর সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। এক পযার্যে গত ২৮ এপ্রিল আমাকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে বাড়ি হতে ডেকে নিয়ে প্রাইভেট কার যোগে যশোরের বিভিন্ন জায়গায় ঘোরা-ঘুরি শেষে রাত্র ১২.০০ টার দিকে মিঠুন, সুমন ও ফারুক, উপজেলা: কেশবপুর’রা সাতক্ষীরা জেলার তালা উপজেলার কুমিরা ইউনিয়নের নোয়াকাটী গ্রামের রাস্তার পার্শ্বে সর্বোস্ব লুট করে তাকে ফেলে রেখে যায়। এক পর্যায়ে স্থানীয় লোকজন জানতে পেরে ইউপি চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন বিট পুলিশ এর দায়িত্বে এস আই বুলবুল-কে অবহিত করলে তারা পরবর্তীতে গ্রাম্য পুলিশের মাধ্যমে অভিভাবকের কাছে তাকে হস্তান্তর করেন। এ ঘটনায় এলাকাবাসীর মধ্যে ব্যাপক চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়। পরবর্তীতে জানা যায় তার কাছ থেকে নগদ ১৫ হাজার টাকা এবং একটি স্মার্ট ফোন ছিনিয়ে নেয়।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *