Type to search

মা-ছেলেকে অপহরণ: সিআইডির এএসপিসহ ৩ জন আটক

জাতীয়

মা-ছেলেকে অপহরণ: সিআইডির এএসপিসহ ৩ জন আটক

অপরাজেয়বাংলা ডেক্স: দিনাজপুরের চিরিরবন্দর থেকে মা ও ছেলেকে অপহরণ করে মুক্তিপণ দাবির ঘটনায় রংপুর সিআইডির এএসপিসহ ৩ পুলিশ কর্মকর্তাকে আটক করেছে জেলা পুলিশ।

মঙ্গলবার (২৫ আগস্ট) বিকেলে দিনাজপুর সদর উপজেলার বাশেরহাট থেকে ৩ পুলিশ কর্মকর্তাকে আটক করা হয়।

জানা যায়, চলতি মাসের প্রথম দিকে চিরিরবন্দর উপজেলার পলাশ নামে এক ব্যক্তি রংপুর সিআইডি কার্যালয়ে চিরিরবন্দর উপজেলার জনৈক লুৎফর রহমানের বিরুদ্ধে ৫০ লাখ টাকা প্রতারণার একটি অভিযোগ দায়ের করে। পরে ২৩ আগস্ট রাত সাড়ে ৯টায় সিআইডির এএসপি সারোয়ার কবিরের নেতৃত্বে একটি দল চিরিরবন্দর উপজেলার লুৎফর রহমানের বাড়িতে অভিযান চালায়। তখন বাড়িতে লুৎফর রহমানকে না পেয়ে তার স্ত্রী জহুরা বেগম ও ছেলে জাহাঙ্গীরকে একটি মাইক্রোবাসে তুলে নিয়ে চলে যায়। পরে লুৎফর রহমানের পরিবারকে মা ও ছেলেকে মুক্তি দেওয়ার জন্য মুক্তিপণ হিসেবে ১৫ লাখ টাকা দাবি করে। পরবর্তীকালে ভুক্তভোগী পরিবার ৮ লাখ ৫০ হাজার টাকা নিয়ে সিআইডি কর্মকর্তাদের সঙ্গে দেখা করতে আসতে বলে। মঙ্গলবার বিকেলে ভুক্তভোগী পরিবার প্রথমে তাদের চিরিরবন্দর উপজেলার রানীরবন্দরে পরে কাহারোল উপজেলার দশমাইলে আসবে বলে। এরপর ভুক্তভোগী পরিবারের লোকজন সিআইডি কর্মকর্তাদের দিনাজপুর সদর উপজেলার বাশেরহাটে আসতে বলে।

এর আগে, তারা জেলা পুলিশকে বিষয়টি জানিয়ে রাখে। সিআইডি কর্মকর্তারা বাশেরহাটে এলে জেলা পুলিশ ও সিআইডি তাদের আটক করে। পরে তাদের চিরিরবন্দর থানায় নিয়ে যাওয়া পরে। রাতে তাদের পুলিশ সুপার কার্যালয়ে নেওয়া হয়।

এ বিষয়ে চিরিরবন্দর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সুব্রত কুমার সরকারকে ফোন দেওয়া হলে তিনি জেলা পুলিশ সুপারের সঙ্গে কথা বলার জন্য বলেন।

এদিকে জেলা পুলিশ সুপার আনোয়ার হোসেনকে ফোন দেওয়া হলে তিনি ফোন রিসিভ করেননি। সূত্র, বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *