Type to search

মহানবীকে (সা.) নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য করার দায়ে বিজেপি নেতা গ্রেপ্তার

আন্তর্জাতিক

মহানবীকে (সা.) নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য করার দায়ে বিজেপি নেতা গ্রেপ্তার

আন্তর্জাতিক ডেস্ক- মহানবী হযরত মুহাম্মদকে (সা.) নিয়ে অবমাননাকর মন্তব্য করার দায়ে ভারতের ক্ষমতাসীন রাজনৈতিক দল ভারতীয় জনতা পার্টির (বিজেপি) যুব মোর্চার এক নেতাকে গ্রেফতার করেছে দেশটির উত্তর প্রদেশের কানপুর পুলিশ।  বিজেপির যুব শাখার এই নেতা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে আপত্তিকর পোস্টের মাধ্যমে পরিবেশ নষ্টের চেষ্টা করায় তাকে গ্রফতার করে পুলিশ। খবর এনডিটিভি।

ইসলাম ধর্মের নবীকে (সা.) নিয়ে বিজেপির দুই নেতা বিতর্কিত মন্তব্য করায় ভারতের বিভিন্ন প্রদেশের সংখ্যালঘু মুসলিমরা বিক্ষোভ-প্রতিবাদ করছেন। চার দিন আগে উত্তর প্রদেশের কানপুরে মুসলিমদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এরপর বুধবার বিজেপির যুব শাখার নেতা হর্ষিত শ্রীবাস্তবকে গ্রেপ্তার করেছে দেশটির পুলিশ।

কানপুর পুলিশ কমিশনার বিজয় মীনা বলেছেন, যারা ধর্মীয় অনুভূতি নিয়ে খেলার চেষ্টা করবে,আমরা তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেব।

ভারতের আলোচিত জ্ঞানবাপী মসজিদ ইস্যুতে গত মাসে এক টেলিভিশন টকশোতে মহানবী (সা.) প্রসঙ্গে অবমাননাকর মন্তব্য করেন বিজেপির মুখপাত্র নুপুর শর্মা। এ ঘটনা উত্তর প্রদেশের মুসলিমদের ক্ষুব্ধ করে তোলে। বৃহস্পতিবার নুপুর শর্মাকে সমর্থন করে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম টুইটারে টুইট করেন রাজ্য বিজেপির অপর নেতা নবীন কুমার জিন্দাল। পরে অবশ্য সেই টুইট মুছে ফেলেন তিনি।

এদিকে, এ ঘটনার জেরে শুক্রবার জুমার নামাজের পর উত্তর প্রদেশের কানপুর জেলায় দুটি গোষ্ঠীর সদস্যদের মধ্যে সংঘর্ষ হয়েছে। এতে পুলিশের ২০ কর্মকর্তাসহ ৪০ জন আহত হয়েছেন। সোমবার পুলিশ সহিংসতার এই ঘটনায় দায়ের করা মামলায় সন্দেহভাজন অভিযুক্ত হিসেবে ৪০ জনের ছবি প্রকাশ করেছে। সিসিটিভি ফুটেজ এবং মোবাইল ফোনে ধারণ করা ভিডিও ও ছবি থেকে সন্দেহভাজনদের তালিকা প্রকাশ করা হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

সহিংসতার পর দেড় হাজারের বেশি মানুষকে আসামি করে মামলা দায়ের করেছিল কানপুর পুলিশ। এই মামলার প্রধান অভিযুক্ত জাফর হায়াতসহ ৫০ জনের বেশি মানুষকে ইতামধ্যে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

নবীকে (সা.) নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য করায় রোববার নুপুর শর্মাকে দল থেকে বরখাস্ত এবং জিন্দালকে বহিষ্কার করেছে বিজেপি। এরপরও বিজেপির জ্যেষ্ঠ দুই নেতার বিতর্কিত মন্তব্যের জেরে মুসলিম বিশ্বের ক্রমবর্ধমান ক্ষোভ ও তোপের মুখে পড়েছে ভারত। মধ্যপ্রাচ্যের প্রভাবশালী সৌদি আরব, কাতার, কুয়েত, সংযুক্ত আরব আমিরাতসহ অন্তত ১৬টি দেশ ভারতের বিরুদ্ধে সরব হয়েছে। এসব দেশ ভারত ও বিজেপি সরকারের নিন্দা জানানোর পাশাপাশি দেশটিকে প্রকাশ্যে ক্ষমা চাওয়ার আহ্বান জানিয়েছে।

সময়ের কণ্ঠস্বর

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *