Type to search

নির্বাচনী সহিংতা; কেশবপুরে ছাত্রলীগ নেতাকে মারপিট 

কেশবপুর

নির্বাচনী সহিংতা; কেশবপুরে ছাত্রলীগ নেতাকে মারপিট 

জাহিদ আবেদীন বাবু, কেশবপুর (যশোর) থেকে:
পঞ্চম ধাপে যশোরের কেশবপুর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা হয়েছে। ঘোষিত তফসিলে যশোরের কেশবপুর উপজেলার ১১টি ইউনিয়নে আগামী ৫ জানুয়ারি নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন ঘিরে সহিংসতা বাড়ছে। উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে ভোটের মাঠ। আওয়ামীলীগের প্রার্থীদের মধ্যে বেশি সহিংসতা হচ্ছে। এলাকায় আধিপত্য বিস্তার করতে সন্ত্রাসী বাহিনীকে কাজে লাগিয়ে নিজ দলের নেতাকর্মীদের মারপিটের ঘটনা ঘটছে। পাঁজিয়া ইউনিয়নের জসীম উদ্দীন আওয়ামী লীগ মনোনয়ন নিয়ে চেয়ারম্যান পদে নির্বাচন করতে চান। স্থানীয় আওয়ামীলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদককে কোনঠাসা করে রাখতে তিনি নিজস্ব একটি বাহিনী তৈরি করেছেন। এই বাহিনীর সদস্যরা আওয়ামীলীগ, যুবলীগ ও ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের হুমকি ধামকি ও মারপিট করে চলেছে। তারই ধারাবাহিকতায় ইউনিয়ন ছাত্রলীগের যুগ্ম আহবায়ক আরিফুজ্জামানকে গত ২৭ নভেম্বর রাতে মারপিট করা হয়। আহত ছাত্রলীগ নেতা আরিফুজ্জামান আরিফ বলেন, তিনি ইউনিয়ন ছাত্রলীগের যুগ্ম আহবায়কের দায়িত্বে রয়েছেন। সংগত কারণেই তিনি ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের সাথে দলের সকল কর্মকাণ্ডে উপস্থিত থাকেন। আসন্ন ইউপি নির্বাচনে পাঁজিয়া ইউনিয়ন থেকে চেয়ারম্যান নির্বাচন করতে চান জসিম উদ্দীন। সম্প্রতি তিনি আওয়ামীলীগের হয়ে নির্বাচন করতে এসেছেন। ইতোপূর্বে তিনি তার সাথে থেকে কাজ করার জন্য বলেছেন। ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের বাইরে কারো সাথে যেতে অপারগতা প্রকাশ করলে তার সমর্থক হিসেবে পরিচিত ইমরান হোসেন ও বিল্লাল হোসেনকে দিয়ে হুমকি প্রদান করে। তারই ধারাবাহিকতায় ২৭ নভেম্বর পাঁজিয়া বাজার থেকে বাড়ি ফেরার পথে হৃদ এলাকায় পৌঁছালে মোটরসাইকেলে পেছন থেকে এসে রড দিয়ে মাথায় আঘাত করে ইমরান ও বিল্লাল। এসময় তাদের সাথে একদল ব্যক্তি থাকলেও আমার চিৎকারে এলাকাবাসী ছুটে আসলে হামলাকারীরা পালিয়ে যায়। এলাকাবাসী রাতেই আমাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। এ বিষয়ে কেশবপুর থানায় ২৮ নভেম্বর লিখিত অভিযোগ করা হয়েছে।
এ বিষয়ে জসীম উদ্দীন বলেন, ছাত্রলীগ নেতাকে মারপিটের বিষয়ে তিনি কিছুই জানেন না। ইমরান ছাত্রলীগের একজন সক্রিয় কর্মী হিসেবে আমার সাথে থাকে। তাদের দুইজনের মধ্যে পূর্ব থেকে বিরোধ ছিলো। তারই সূত্র ধরে এ ঘটনা ঘটতে পারে। মারপিটের খবর পেয়েই হাসপাতালে দেখতে গিয়েছি। যদি কেউ অপরাধ করে তার শাস্তি হোক এটা তিনি চান।
তিনি আরো বলেন, ইউনিয়ন নির্বাচন উপলক্ষে ঘোলা পানিতে মাছ শিকার করতেই এ ঘটনাটিতে আমাকে জড়িয়ে মনগড়া বক্তব্য অপপ্রচার করা হচ্ছে। যার কোনো ভিত্তি নেই।
এ বিষয়ে পাঁজিয়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি শফিকুল ইসলাম মুকুল বলেন, জসীম উদ্দীন হাইব্রিড আওয়ামী লীগ নেতা। দলের কোনো পদ পদবী না থাকলেও আওয়ামী লীগের মনোনয়ন নিয়ে চেয়ারম্যান হবার আশায় গত প্রায় এক বছর ঘুরাঘুরি করছে। ইউনিয়ন আওয়ামীলীগকে বিভক্ত করার লক্ষে নিজস্ব কিছু লোক দিয়ে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের তার পক্ষে নিতে প্রলোভন ও হুমকি দিচ্ছে। তারই ধারাবাহিকতায় ইউনিয়ন ছাত্রলীগের যুগ্ম আহবায়ককে মারপিট করে আহত করা হয়েছে।
কেশবপুর থানার দায়িত্বরত ডিউটি অফিসার সহকারী উপপরিদর্শক (এএসআই) তপতি ঢালী বলেন, এ বিষয়ে একটি অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত করে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *