Type to search

দেশে করোনার বুস্টার ডোজ টিকা দেওয়া শুরু

জাতীয়

দেশে করোনার বুস্টার ডোজ টিকা দেওয়া শুরু

অপরাজেয় বাংলা (অনলাইন ডেক্স):, চট্টগ্রাম, টাঙ্গাইলসহ দেশের বেশ কয়েকটি জেলায় ষাটোর্ধ্ব ও সম্মুখসারির কর্মীদের করোনার বুস্টার ডোজ দেওয়া শুরু হয়েছে। বুস্টার ডোজ হিসেবে ফাইজারের টিকা দেওয়া হচ্ছে কেন্দ্রগুলোতে। করোনা টিকার দ্বিতীয় ডোজ নেওয়ার ৬ মাস পার হয়েছে এমন ব্যক্তিদের মোবাইলে বুস্টার ডোজ নেওয়ার জন্য এসএমএস পাঠানো হচ্ছে হাসপাতাল থেকে। সময় গড়ানোর সঙ্গে সঙ্গে কভিড টিকার সুরক্ষা দুর্বল হয়ে আসায় কিছু দেশ বাড়তি আরেক ডোজ টিকা দিচ্ছে নাগরিকদের, যাকে বলা হচ্ছে বুস্টার ডোজ। এর মধ্যে করোনাভাইরাসের নতুন ভ্যারিয়েন্ট ওমিক্রন বিশ্বের অধিকাংশ দেশে ছড়িয়ে পড়ায় সতর্ক করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)। বলা হচ্ছে, দুই ডোজ টিকায় ওমিক্রন ঠেকানো সম্ভব নয়, দরকার আরও একটি ডোজ। সে জন্য বাংলাদেশেও বুস্টার ডোজ দেওয়ার পরামর্শ দেয় কভিড-১৯ সংক্রান্ত জাতীয় কারিগরি পরামর্শক কমিটি। এর পরিপ্রেক্ষিতে ১৯ ডিসেম্বর ৬০ জনকে বুস্টার ডোজ দিয়ে এ কার্যক্রম উদ্বোধন করে স্বাস্থ্য বিভাগ। টিকা নেওয়া ব্যক্তিদের পর্যবেক্ষণ করে গতকাল থেকে রাজধানী এবং এর বাইরে বেশ কিছু জায়গায় বুস্টার ডোজ দেওয়া শুরু হয়েছে।রাজধানীর কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতাল, শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউট, জাতীয় নাক, কান, গলা ইনস্টিটিউট, শ্যামলীর ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট টিবি হাসপাতাল, শেখ রাসেল গ্যাসট্রোলিভার ইনস্টিটিউট হাসপাতালসহ বেশ কিছু হাসপাতালে বুস্টার ডোজ দেওয়া হয়েছে।

শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে ২০০ জনকে বুস্টার ডোজ নেওয়ার জন্য এসএমএস পাঠানো হলেও তাদের মধ্যে ১০০ জন টিকা নিয়েছেন। এ বিষয়ে হাসপাতালের সহকারী অধ্যাপক ডা. আশরাফুল হক বলেন, ‘টিকা নিতে ইদানীং মানুষের আগ্রহ কিছুটা কম। এখন প্রথম ও দ্বিতীয় ডোজ নিতেও আগ্রহ কিছুটা কম দেখছি। বুস্টার ডোজের ব্যাপারেও তাই হচ্ছে। যারা এসএমএস পেয়ে টিকা নেননি, তারা পরেও টিকা নিতে পারবেন।’

শ্যামলীর ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট টিবি হাসপাতাল থেকে ১ হাজার মানুষকে এসএমএস পাঠানো হলেও গতকাল বেলা পৌনে ৩টা পর্যন্ত সাড়ে ৪০০ জন বুস্টার ডোজ নিয়েছেন বলে জানিয়েছেন সহকারী পরিচালক ডা. আয়েশা আক্তার। জাতীয় নাক, কান, গলা ইনস্টিটিউটের পরিচালক অধ্যাপক ডা. মো. আবু হানিফ বলেন, গতকাল হাসপাতালের টিকা কেন্দ্রে ১৬ জনকে টিকা দেওয়া হয়েছে। টিকা গ্রহীতারা ষাটোর্ধ্ব এবং সম্মুখসারির কর্মী। দ্বিতীয় ডোজ নেওয়ার অন্তত ৬ মাস পেরিয়েছে এমন ব্যক্তিরাই তৃতীয় ডোজ পাচ্ছেন। সে জন্য নতুন করে নিবন্ধন করতে হচ্ছে না। যারা তৃতীয় ডোজ পাওয়ার যোগ্য, তাদের কাছে এসএমএস চলে যাচ্ছে। দেশে করোনাভাইরাসের টিকার প্রথম ডোজ দেওয়া শুরু করা হয়েছিল এ বছরের ৭ ফেব্রুয়ারি। ১০ মাসের বেশি সময় পর তৃতীয় ডোজ দেওয়া শুরু হলো। স্বাস্থ্য অধিদফতরের হিসাবে, ২৭ ডিসেম্বর পর্যন্ত সারা দেশে ১২ কোটি ১৩ লাখ ২৪ হাজার ৫৩৯ ডোজ টিকা দেওয়া হয়েছে। প্রথম ডোজ নিয়েছেন ৭ কোটি ১৭ লাখ ৪৮ হাজার ৫৪৩ জন, যা মোট জনসংখ্যার ৪২ শতাংশের বেশি। পূর্ণ ডোজ পেয়েছেন ৪ কোটি ৯৫ লাখ ৭৫ হাজার ৯৯৬ জন। এ সংখ্যা দেশের মোট জনসংখ্যার ২৯ শতাংশের বেশি। আমাদের নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম জানান, চট্টগ্রামের পটিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ষাটোর্ধ্ব বয়সীদের টিকা দেওয়ার মধ্য দিয়ে চট্টগ্রামে করোনার বুস্টার ডোজ প্রদান শুরু হয়েছে। গতকাল সকাল ১০টা থেকে এই কার্যক্রম শুরু হয়। প্রথম দিন ১৬০ জনকে টিকা দেওয়া হয়। পটিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্মকর্তা ডা. সব্যসাচীনাথ বলেন, অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকা দিয়ে বুস্টার ডোজ প্রদান শুরু করা হয়। পটিয়া ও কর্ণফুলী উপজেলার ষাটোর্ধ্ব বয়সীরা এ টিকার আওতায় আসবেন। যারা টিকার ম্যাসেজ পেয়েছেন তারাই বুস্টার ডোজ পাবেন। চট্টগ্রামের সিভিল সার্জন ডা. ইলিয়াছ চৌধুরী বলেন, আমাদের প্রথম প্রাধান্য ফাইজার, দ্বিতীয় মডার্না এবং তৃতীয় অ্যাস্ট্রাজেনেকা। যেসব কেন্দ্রে ফাইজার টিকা দেওয়ার ব্যবস্থা নেই, তারা চাইলে অন্য টিকা দিয়ে বুস্টার ডোজ কার্যক্রম শুরু করতে পারেন। সে হিসেবে পটিয়া উপজেলায় অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকা দিয়ে কার্যক্রম শুরু হয়েছে। টাঙ্গাইল প্রতিনিধি জানান, টাঙ্গাইল শেখ হাসিনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল কেন্দ্রে বুস্টার ডোজ দেওয়া শুরু হয়েছে। জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি ও জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ফজলুর রহমান খান ফারুক বুস্টার ডোজ গ্রহণ করে এ কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন। সিভিল সার্জন আবুল ফজল মো. শাহাবুদ্দিন খান বলেন, ফাইজারের টিকা বুস্টার ডোজ হিসেবে দেওয়া হচ্ছে। জেলা পর্যায়ে ফাইজার এবং উপজেলা পর্যায়ে অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকা বুস্টার ডোজ হিসেবে দেওয়া হবে।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *