Type to search

চৌগাছায় পৃথক ঘটনায় যুবক ও বৃদ্ধার আত্মহত্যা

অন্যান্য চৌগাছা

চৌগাছায় পৃথক ঘটনায় যুবক ও বৃদ্ধার আত্মহত্যা

চৌগাছা প্রতিনিধি
যশোরের চৌগাছায় এক রাতে পৃথক ঘটনায় হাজেরা বেগম (৬০) এবং আক্তার হোসেন (৩০) নামে দুই জন আত্মহত্যা করেছেন। হাজেরা বেগম উপজেলার সুখপুকুরিয়া ইউনিয়নের সুখপুকুরিয়া গ্রামের শের আলীর স্ত্রী এবং আক্তার হোসেন ধুলিয়ানী ইউনিয়নের বড়কাবিলপুর গ্রামের জুলফিক্কার আলীর ছেলে।
মঙ্গলবার (২০ সেপ্টেম্বর) রাত সাড়ে ৮টার দিকে চৌগাছা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে হাজেরা বেগম এবং রাত সাড়ে ১১টার দিকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপতালে আক্তার হোসেনের মৃত্যু হয়।
স্বজনরা জানান, হাজেরা বেগম জন্ম থেকেই কিছুটা প্রতিবন্ধী ছিলেন। পারিবারিক টুকিটাকি বিষয় নিয়ে স্বামীর উপর অভিমান করে মঙ্গলবার রাত ৮টার দিকে পরিবারের সদস্যদের অগোচরে আগাছা নাশক পান করেন। পরে স্থানীয়দের সহায়তায় তাকে উদ্ধার করে চৌগাছা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিলে তাঁর মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় চৌগাছা থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা হয়েছে। পরে পরিবারের সদস্যদের আপত্তি না থাকায় তাদের আবেদনের প্রেক্ষিতে ময়নাতদন্ত ছাড়াই তার লাশ দাফনের অনুমতি দেয়া হয়।
একইদিন মঙ্গলবার রাত ৮টার দিকে পরিবারের সদস্যদের উপর অভিমান করে আগাছা নাশক (ফিনিশ) পান করে আক্তার হোসেন। পরিবারের সদস্যরা তাঁকে উদ্ধার করে প্রথমে চৌগাছা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেন। সেখানে অবস্থার অবনতি হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাঁকে যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে স্থানান্তর করেন। সেখানেও অবস্থার উন্নতি না হলে তাঁকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। সেখানে রাত সাড়ে ১১টার দিকে তাঁর মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় খুলনা মহানগরীর সোনাডাঙ্গা মডেল থানায় অপমৃত্যু মামলা হয়। পরে পরিবারের সদস্যদের আবেদনের প্রেক্ষিতে ময়নাতদন্ত ছাড়াই তাঁর লাশ দাফনের অনুমতি দেয়া হয়।
চৌগাছা থানার ওসি সাইফুল ইসলাম সবুজ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *