Type to search

কেশবপুরে ন্যায্যমূল্যে চাল ও আটা বিক্রয় কেন্দ্রে ক্রেতাদের ভীড়

কেশবপুর

কেশবপুরে ন্যায্যমূল্যে চাল ও আটা বিক্রয় কেন্দ্রে ক্রেতাদের ভীড়

কেশবপুর (যশোর) প্রতিনিধি::
যশোরের কেশবপুরে স্বল্প আয়ের মানুষের খাদ্য চাহিদা পূরণে ন্যায্যমূল্যে খোলা বাজারে চাল ও আটা বিক্রয় কার্যক্রম শুরু হয়েছে। প্রতিদিন ১ হাজার ২শ’ পরিবারের কাছে ৫ কেজি চাল ও ৫ কেজি আটা বিক্রি করা হচ্ছে। এসব খাদ্য সামগ্রী ক্রয় করতে নিম্ন মধ্যবিত্ত ছাড়াও মধ্যবিত্ত শ্রেণির মানুষদের ভীড় করছে। তবে চাহিদা অনুযায়ী সরবরাহ না থাকায় দীর্ঘ সময় লাইনে দাঁড়িয়ে থেকেও অনেকে খালি হাতে বাড়ি ফিরেছেন। মঙ্গলবার থেকে কেশবপুর প্রেসক্লাব চত্বরসহ ৪ স্থানে এসব খাদ্য সামগ্রী বিক্রি করা শুরু হয়।
কেশবপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার এম এম আরাফাত হোসেন, বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর ৫৫ ডিভিসনের সদস্যদের সাথে নিয়ে ঝড়-বৃষ্টি উপেক্ষা করে ন্যায্যমূল্যে খাদ্য-দ্রব্য বিক্রি তদারকি করছেন।
কেশবপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসারের অফিসের একটি সূত্র জানায়, ৪ জন ডিলারের প্রত্যেককে দেড় টন চাল ও এক টন আটা বিক্রির জন্য দেয়া হয়েছে।
ডিলার ওহাদিুজ্জামান বিশ্বাস জানান, চাহিদার তুলনায় সরবরাহ কম থাকায় বরাদ্দ চাল ও আটা দ্রুত বিক্রি হয়ে যাচ্ছে।
কেশবপুর নাগরিক সমাজের সভাপতি অ্যাডভোকেট আবু বকর সিদ্দিক জানান, কেশবপুর পৌর শহরে প্রায় ৫ হাজার শ্রমজীবী মানুষ রয়েছেন। তাদের এখন কাজকর্ম নেই। এজন্য করোনা মহামারির সময় প্রতিটি পরিবারকে বিনা মূল্যে খাদ্য সরবরাহ জরুরি। এবং মধ্যবিত্ত শ্রেণির জন্য কম মূল্যে আরও বেশি খাদ্য সামগ্রী বিক্রয়ের ব্যবস্থা করতে হবে। এব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী অফিসার এম এম আরাফাত হোসেন বলেন, বিশেষ ব্যবস্থায় ৪ স্থানে চাল, আটা বিক্রয়ের ব্যবস্থা করা হয়েছে। তিনি আরো বলেন, বরাদ্দ বাড়ানোর জন্য জেলা প্রশাসকের সাথে পরামর্শ করবেন।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *