Type to search

অভয়নগরে গণপিটুনিতে নিহত তিন’র মধ্যে দুই জনের পরিচয় মিলেছে

অভয়নগর

অভয়নগরে গণপিটুনিতে নিহত তিন’র মধ্যে দুই জনের পরিচয় মিলেছে

স্টাফ রিপোর্টার:
যশোরের অভয়নগর উপজেলার প্রেমবাগে গণপিটুনিতে নিহত তিন জনের মধ্যে দুই জনের পরিচয় মিলেছে। একজনের পরিচয় না পাওয়ায় তার লাশ আঞ্জুমান মহিদুলের মাধ্যমে দাফন করা হয়েছে। পরিচয় পাওয়া এক জনের নাম হরিদাস মন্ডল(২৬) ওরফে সোহেল। সে খুললনা জেলার পাইকগাছ উপজেলার কলমিবানিয়া খামার গ্রামের বিনয় মন্ডলের ছেলে এবং অপরজন সাজ্জাত হোসেন সৈকত(২৭)। সাজ্জাত খুলনার বানিয়াখামার এলাকায় বসবাস করতো। তার গ্রামের বাড়ি বাগের হটে পিসি কলেজের পাশে। পরিচয় পাওয়াদের লাশ তারা পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

পুলিশ জানায়, নিহতের নামে বিভিন্ন থানায় চুরির ঘটনায় একাধিক মামলা আছে। এরা আন্তজেলা চোর সিন্ডিকেটের সদস্য। এদের মূল হোতার বাড়ি বরিশাল জেলায় তাকে গ্রেফতারের চেষ্টা করা হচ্ছে। এদিকে গণপিটুনিতে নিহতের ঘটনায় সোমবার রাতে থানায় মামলা হয়েছে। থানার এস আই আনিচুর রহমান বাদি হয়ে সাড়ে চারশ থেকে পাচশ অজ্ঞত আসামী কওে থানায় মামলা দায়ের হয়েছে।
সোমবার ভোররাতে গরু চোর সন্দেহে গণপিটুনিতে তিনজনের মৃত্যু হয়। এক জন আহত হয়। তার নাম জনি শেখ(২৪) সে বাগেরহাট জেলার ফকিরহাট উপজেলার কাটাখালী গ্রামের ওহাব শেখের ছেলে। জনি শেখ চোরাই কাজে ব্যাবহৃত ট্রাাকের ড্রইভার।
গ্রামবাসী জানায়, দীর্ঘদিন ধরে তাদের এলঅকায় গরু চুরির ঘটনা ঘটছে। সোমবার ভোররাতে এলাকার গাইদগাছী গ্রামের খোরশেদ আলীর গোহাল থেকে তিনটি গরু চুরি হয়। বাড়ির লোকজন টের পেয়ে এলাকার মসজিদের মাইকে চোর ধরার জন্য প্রচার করা হয়। চোরেরা একটি ট্রাক, একটি পিকআপ নিয়ে গরু চুরি করে পালিয়ে যেতে থাকে। প্রেমবাগ গেট এলাকায় পৌছালে তারা চোরাই গরু সহ জনগনের হাতে ধরা পড়ে। এসময় গ্রামবাসী চার চোরকে ধরে গণপিটুনি দিতে শুরু করে। গণপিটানিতে ঘটনাস্থলে দুই জনের মৃত্যু হয়। পরে পুলিশ এসে আহত একজনকে উদ্ধার কওে হাসপাতালে প্রেরণ করে । হাসপাতালে নেওয়ার পথে তার মৃত্যু হয়।এবং আহত অবস্থায় এক জনকে আটক করে । পরে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করে চুরির বিষয়টি নিশ্চিত হয়।
এ ব্যাপারে প্রেমবাগ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মফিজ উদ্দিন ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন। গরু চোর সন্দেহে গণপিটুনিতে দুইজন ঘটনাস্থলে মারা যায় এবং মুমূর্ষ একজন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে মারা যায়। জনি শেখ নামের অপর এক চোরকে পুলিশ আটক করে নিয়ে যায়।
অভয়নগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) তাজুল ইসলাম জানান, আটক জনি শেখের জবানবন্দী মোতাবেক সোমবার গভীর রাতে যশোর সদর উপজেলার গাইদগাছী গ্রাম থেকে একটি ট্রাক ও একটি পিকআপে করে কয়েকটি গরু চুরি করে অভয়নগরের প্রেমবাগ ইউনিয়নের সিমান্তের গ্রামে প্রবেশ করেন। এসময় গ্রামবাসী তাদেরকে ঘিরে ফেলে এবং গণপিটুনি দিতে শুরু করে। ওসি আরো বলেন, গণপিটুনিতে ঘটনাস্থলে দুইজন মারা যায়এবং একজনকে উদ্ধার করে অভয়নগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়ার পর তার মৃত্যু হয়।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *