Type to search

অভয়নগরের সন্তানেরা ঈদ উপহার স্বরুপ করোনা এনেছে ঢাকা থেকে

অভয়নগর

অভয়নগরের সন্তানেরা ঈদ উপহার স্বরুপ করোনা এনেছে ঢাকা থেকে

অভয়নগর(যশোর) প্রতিনিধি

যশোরের অভয়নগর উপজেলার ঢাকায় কর্মরত সন্তানেরা  ঈদ উদযাপন করতে ছুটে এসেছে বাড়িতে। আর উপহার স্বরুপ তারা বয়ে এনেছে করোনা ভাইরাস। ঈদের পর মঙ্গল ও বুধবার ঢাকা থেকে আগত তিন জনের নমুনা পরীক্ষায় করোনা পজেটিভ ধরা পড়েছে। এ নিয়ে এ পর্যন্ত উপজেলায় মোট ৭ জন রোগীর শরীরে করোনা ধরা পড়েছে। অভয়নগর উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা: মাহামুদুর রহমান রিজভী বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

উপজেলায় নতুন করে করোনা ভাইরাস সনাক্ত হয়েছেন দুইজন। ওই দুইব্যক্তির একজনের বাড়ি উপজেলার চলিশিয়া গ্রামে। তার নাম মাসুদ করিম রাজন(৩৭)।তিনি ঢাকা জনতা ব্যাংকের মতিঝিল শাখার সিনিয়র অফিসার হিসেবে কর্মরত। করোনা সংক্রামক অপর ব্যাক্তির নাম মো: মামুন বেগ(২৫)। তার বাড়ি উপজেলার বাগদা প্রামে। তিনি ঢাকায় ব্যাবসা করতেন বলে জানা গেছে। ওই দুই ব্যাক্তি ঈদ উপলক্ষ্যে ঢাকা থেকে গ্রামে এসেছিলেন। এর আগে শুক্রবার উপজেলার বাসুয়াড়ী গ্রামে আনোয়ার হোসেন নামে এক জনের দেহে করোনা পজেটিভ ধরা পড়ে। শুক্রবার তিনি ঢাকা থেকে বাড়ি এসছেন ঈদ উদযাপন করতে।

অভয়নগর উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা: মাহামুদুর রহমান রিজভী জানান, ঈদের আগের দিন নতুন আক্রান্ত হওয়া দুই ব্যক্তি হাসপাতালে আসলে করোনা সন্দেহে তাদের নমুনা খুলনা মেডিকেল কলেজের পিসিআর ল্যাবে পাঠানো হয়। গত মঙ্গলবার বিকালে সম্পন্ন করা পরীক্ষায় তাদের রিপোর্ট আজ সকালে যশোর সিভিল সার্জনের কার্যালয় থেকে আমাদের হাতে এসে পৌছেছে। নমুনা পরীক্ষার রিপোর্টে দুইজনই পজিটিভ এসেছে। তিনি বলেন, তারা সুস্থ আছেন। তাদের নিজ বাড়িতে রেখে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

মাহামুদুর রহমান রিজভী আরও বলেন,‘ এ পর্যন্ত করোনা সন্দেহে পাঠানো নমুনার মধ্যে ৭ ব্যাক্তির পজিটিভ রিপোর্ট এসেছে। এদের মধ্যে প্রথম দুইজন সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে গেছে। অপর তিনজন খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতলে চিকিৎসধিীন রয়েছে। নতুন আক্রান্ত দুইব্যাক্তির পরিবারের অন্যদের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য খুলনায় পাঠিয়েছি।’

এদিকে বুধবার সকালে উপজেলা সহকারি কমিশনার(ভ’মি) কে এম রফিকুল ইসলাম নতুন আক্রান্ত দুইজনের বাড়ি লকডাউন করেছেন। এবং তিনি তাদের পরিবারে প্রযোজনীয় খাদ্য সহায়তা প্রদান করেছেন বলে তিনি জানিয়েছেন।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *