Type to search

ল্যাব আছে টেকনিশিয়ান নেই

খুলনা

ল্যাব আছে টেকনিশিয়ান নেই

অপরাজেয়বাংলা ডেক্স: মোংলা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে তিনটি ল্যাব টেকনিশিয়ান ও সমান সংখ্যক সহকারীর পদ শূন্য পড়ে আছে। নেই এক্স-রে টেকনিশিয়ানও। এসব সমস্যার কারণে করোনা রোগীদের প্রয়োজনীয় সেবা দিতে পারছে না হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

সোমবারও (০৭ জুন) এ উপজেলায় ১৪ জনের করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। দিনে দিনে রোগী বাড়তে থাকলেও হাসপাতালটির সমস্যা প্রকট আকার ধারণ করছে।

সোমবার দুপুরে হাসপাতাল ঘুরে দেখা গেছে, করোনা পরীক্ষা করতে আসা রোগীদের ভিড়। হাসপাতালে ল্যাব থাকলে সেখানে টেকনিশিয়ান নেই। এক্স-রে মেশিন চালানোর মানুষটিও নেই। শূন্য পড়ে আছে হাসপাতালের পুরুষ ও নারী ওয়ার্ডের বেডগুলো। করোনা বাড়ায় হাসপাতালে ভর্তি রোগীরা ভয়ে বাড়ি চলে গেছেন। হাসপাতালে আসছেনও কম সংখ্যক রোগী। আজ পুরুষ ওয়ার্ডে দুজন ও নারী ওয়ার্ডে তিনজন রোগী দেখা গেছে। আগে যেখানে দিনে ২৫০ রোগী আসতেন এ হাসপাতালে, এখন তা অর্ধশততে নেমে এসেছে।

এদিকে এ শূন্য পদগুলো পূরণ ও এখানে সেন্ট্রাল অক্সিজেন সুবিধা চালুর দাবি জানিয়েছেন হাসপাতালটির স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. জীবিতেশ বিশ্বাস।

তিনি জানান, হাসপাতালটিতে পর্যাপ্ত অক্সিজেনের ব্যবস্থা না থাকায় করোনা রোগীদের অধিক চাপের অক্সিজেন প্রয়োজন হলে তাদেরকে খুলনায় পাঠাতে হচ্ছে। এ পর্যন্ত ৮/১০ জনকে পাঠানো হয়েছে খুলনায়।

ডা. জীবিতেশ বিশ্বাস বলেন, এছাড়া টেকনিশিয়ান না থাকায় নমুনা সংগ্রহে নন-টেকনিশিয়ানদের দিয়ে কাজ করানো হচ্ছে। একই কারণে বন্ধ রয়েছে এক্স-রে মেশিনও। করোনা রোগীদের গুরুত্বপূর্ণ পরীক্ষা-নিরীক্ষা করতে পারায় তাদেরকেও খুলনায় পাঠাতে হচ্ছে। হাসপাতালটিতে যে করোনা ইউনিট রয়েছে, সেখানে একসঙ্গে ১৫ জনকে সেবা দেওয়া সম্ভব। এ পর্যন্ত প্রায় ৩০ জন রোগী ভর্তি হয়ে এখানে চিকিৎসা নিয়েছেন। সূত্র,বাংলাট্রিবিউন

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *