Type to search

প্রধানমন্ত্রীর সিদ্ধান্তকে প্রাধান্য দিয়ে নির্াচন থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দিয়ে কেঁদে ফেললেন কেন্দ্রীয় যুবলীগ নেতা কাজী ছরোয়ার হোসেন

নড়াইল

প্রধানমন্ত্রীর সিদ্ধান্তকে প্রাধান্য দিয়ে নির্াচন থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দিয়ে কেঁদে ফেললেন কেন্দ্রীয় যুবলীগ নেতা কাজী ছরোয়ার হোসেন

নড়াইল প্রতিনিধি::

আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নড়াইল-১ আসনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসাবে নির্বাচনে অংশ না নেওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন কেন্দ্রীয় যুবলীগের আর্ন্তজাতিক বিষয়ক সম্পাদক ও নড়াইল জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য কাজী ছরোয়ার হোসেন। বুধবার (২৯ নভেম্বর) সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় কালিয়া প্রেসক্লাবের হলরুমে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এই ঘোষণা দেন। এ সময় বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন। সংবাদ সম্মেলনে কাজী ছরোয়ার হোসেন বলেন, কালিয়া তথা নড়াইল-১ আসনের মানুষের জীবনমানের উন্নয়নসহ শিক্ষার ক্ষেত্রে উন্নয়ন ঘটাতে আমি দীর্ঘদিন ধরে সবার সঙ্গে কাজ করেছি। এলাকার সাধারণ মানুষ ও নেতাকর্মীরা আমাকে ভালবাসেন। আমি সেই ভালোবাসা নিয়েই থাকতে চাই। আমি দলের কাছে মনোনয়ন চেয়েছিলাম কিন্তু পাইনি। আমাকে ভালোবেসে কয়েকজন আমার জন্য মনোনয়ন সংগ্রহ করেছেন। আমি তাদের কাছে কৃতজ্ঞ। তিনি আরও বলেন, আপনারা জানেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আমাকে একটা পদ দিয়েছেন। আমি তাকে সম্মান করি। যদিও তিনি এবার নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হতে নিষেধ করেননি, তবু আমি নৌকার বিপক্ষে নির্বাচন করব না। আমি সারাজীবন নৌকার পক্ষে কাজ করেছি, যারা নৌকার বিপক্ষে ছিল তাদের প্রতিহত করেছি। আজ কিভাবে সেই নিজেই নৌকার বিপক্ষে নির্বাচন করি? এসব কথা বলতে বলতে কেন্দ্রীয় যুবলীগের এই নেতা বাকরুদ্ধ হয়ে পড়েন। কিছু সময় নীরব থেকে কেঁদে ফেলেন। পরে নিজেকে কিছুটা স্বাভাবিক করে বলেন, যে সব নেতাকর্মীরা আমাকে ভালবেসে পাশে ছিলেন, আছেন, আমার জন্য দোয়া করেছেন, তাদের কাছে আমি ক্ষমা প্রার্থী। আমি নৌকার মনোনয়ন আনতে পারিনি। নেত্রীর প্রতি সম্মান দেখিয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসাবে আমার নাম প্রত্যাহার করছি। আমি নৌকার পক্ষে ছিলাম, আছি এবং ভবিষ্যতেও থাকব ইনশাআল্লাহ। তার সঙ্গে থাকা নেতা কর্মীদের নৌকার জন্য কাজ করতে বলেন এবং ভবিষ্যতেও তিনি নড়াইল-১ আসনের মানুষের পাশে থেকে সবার সুখ-দুঃখ ভাগ করে নিতে চান বলে জানান কাজী ছরোয়ার হোসেন।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *