Type to search

গার্মেন্ট শ্রমিকে পিটিয়ে হত্যার প্রতিবাদে সড়ক অবরোধ

জাতীয়

গার্মেন্ট শ্রমিকে পিটিয়ে হত্যার প্রতিবাদে সড়ক অবরোধ

 

অপরাজেয় বাংলা ডেক্স-রাজধানীর রামপুরায় এক শ্রমিককে পিটিতে হত্যার প্রতিবাদে সড়ক অবরোধ চলাকালে শ্রমিকদের লাঠিচার্জ করে পুলিশ। পাশাপাশি গুলিও ছোড়া হয়।

 

অবরোধে শ্রমিকরা একটি গার্মেন্ট ভাঙচুরের চেষ্টা করলে পুলিশের সঙ্গে তাদের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। এ সময় শ্রমিকদের ছোড়া ইটের আঘাতে হাতিরঝিল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুর রশিদ ও তেজগাঁও বিভাগের এক সহকারী কমিশনার (এসি) আহত হন।

বৃহস্পতিবার (২৫ জুলাই) বিকেলে এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশের তেজগাঁও বিভাগের উপ-কমিশনার (ডিসি) আনিসুর রহমান বলেন, ‘সড়ক অবরোধের একপর্যায়ে শ্রমিকরা এক হয়ে ইজি গার্মেন্টে হামলার প্রস্তুতি নেয়। এ সময় পুলিশ অ্যাকশনে গিয়ে তাদের ছত্রভঙ্গ করে দেয়।’

ঘটনার বর্ণনা দিয়ে ডিসি বলেন, ‘সকালে ইজি গার্মেন্টসে দেলোয়ার নামে কাটিং বিভাগের একজন শ্রমিককে চোর সন্দেহে মারধর করে ওই গার্মেন্টসের কয়েকজন কর্মী। গার্মেন্টসের লোকজন জানান, দেলোয়ার নাকি ওই গার্মেন্টসের জানালা দিয়ে কাপড় নিচে ফেলছিলেন। এরপর তারা তাকে মারধর করে হত্যা করে। পুলিশকে না জানিয়ে ইজি গার্মেন্টস দেলোয়ারকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে পাঠায়। সেখানে তার মৃত্যুর পর পুলিশ বিস্তারিত ঘটনা জানতে পারে। এ ঘটনায় আরেকজন আহত হন। তিনি স্থানীয় একটি হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন।’

তিনি বলেন, ‘আইন নিজের হাতে তুলে নেয়ায় ইজি গার্মেন্টসের ৩ জনকে আটক করা হয়েছে। এ ঘটনায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করা হবে।’

‘দেলোয়ারের মৃত্যুর বিষয়টি ছড়িয়ে পড়ার পর পোশাকশ্রমিকরা রামপুরা সড়ক অবরোধ করে। পরে আমরা তাদের ছত্রভঙ্গ করে দিই’-যোগ করেন ডিসি।

এদিকে বৃহস্পতিবার দুপুর ২টা থেকে বন্ধ থাকা রামপুরা সড়কটি বিকেল পৌনে ৫টায় খুলে দেয়া হয়। বর্তমানে সড়কের দুইপাশে যান চলাচল করলেও প্রচণ্ড যানজট রয়েছে।

ডিএমপির ট্রাফিক বিভাগ জানিয়েছে, রামপুরা সড়কের একপাশের যানজট মালিবাগ মোড় এবং আরেকপাশে উত্তর বাড্ডায় গিয়ে ঠেকেছে। পুলিশ যান চলাচল স্বাভাবিক করার চেষ্টা করছে।’

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *