Type to search

অভয়নগরে ভুয়া ভ্রাম্যমাণ আদালতের নারী সহ চার সদস্য আটক

অভয়নগর

অভয়নগরে ভুয়া ভ্রাম্যমাণ আদালতের নারী সহ চার সদস্য আটক

স্টাফ রিপোর্টার: অভয়নগরে ভুয়া ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানে অর্থ হাতিয়ে নেওয়ার সময় একজন নারীসহ চার সদস্যকে আটক করেছে থানা পুলিশ। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় অভয়নগর ও মনিরামপুর উপজেলার সীমান্তবর্তী ঢাকুরিয়া বাজার থেকে একটি প্রাইভেট গড়ি সহ তাদের আটক করা হয়।
আটকৃতরা হলো খূলনার খালিশপুরের গোয়ালখালী এলাকার আব্দুর রাজ্জাকের মেয়ে ইতি খাতুন(২২), একই এলাকার এস এম বাবর আলীর ছেলে মোস্তফা ফয়সাল (৩৫) দক্ষিন পাবলার নূর মোহাম্মদের ছেলে শাহাদাত হোসেন(৩৪), ও ঝিনেইদহের কোটচাদপুর উপজেলার আলোকদিয়া গ্রামের মনিরুল ইসলামের ছেলে জহিরুল ইসলাম(৪০)।
পুলিশ তাদের আটক করতে গেলে তারা নিজেদের সাংবাদিক পরিচয় দেয়। এ সময়ে ইতি খাতুনের কাছ থেকে বঙ্গ টেলিভিশন, মোস্তফা ফয়সালের কাছ থেকে দৈনিক দিগন্ত ও ফলাফল পত্রিকা, জহিরুলের কাছ থেকে দৈনিক ফলাফল পত্রিকার প্রতিনিধির পরিচয়পত্র ও শাহাদাত হোসেন নিজেকে বাংলাদেশ কনজুমার রাইট এনজির কর্মকর্তা পরিচয় দেয়। এসময়ে তাদের কাছ থেকে ওই সব পত্রিকার পরিচয় পত্র ও দুইটি ছড়ি উদ্ধার করা হয়।
পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, গত কয়েক দিন ধরে ওই চক্রটি এলাকায় ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান সাজিয়ে জেল জরিমানার ভয় দেখিয়ে খাবার হোটেল সহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান থেকে অর্থ হাতিয়ে নিয়ে আসছিলো।প্রেমবাগ বাজারের খাবার হোটেলের মালিক সোহাগ হোসেন জানান, আজ মঙ্গলবার দুপুরে ওই চার জন একটি প্রাইভেট গাড়ি থেকে নেমে তার হোটেলে ঢোকে। তারা হোটেলে ঢুকে চোট পাট করতে থাকে। মিষ্টিতে ময়লা থাকার অভিযোগ করে দুই গামলা মিষ্টি মাটিতে ঢেলে ফেলে। এ সময়ে তারা জেল জরিমানার ভয় দেখায়। পরে দুই হাজার টাকা দিলে তার চলে যায়। এর দুই দিন আগে প্রেমবাগের মোরাদ হোসেনের খাবার হোটেল থেকে একই কায়দায় দুই হাজার টাকা হাতিয়ে নেয়। এছাড়া ভাঙ্গাগেট,চেঙ্গুটিয়া এলাকা থেকে আরো কয়েকটি প্রতিষ্ঠান থেকে জেল জরিমানার ভয় দেখিয়ে অর্থ হাতিয়ে নিয়েছে বলে এলাকাবাসী অভিযোগ করেছেন। আজ মঙ্গলবার বিকালে উপজেলার মাগুরা বাজারে মজিদ আলীর রাইস মিলে ঢুকে তারা পরিবেশ অধিদপ্তরের ছাড়পত্র দেখতে চায়। এসময়ে সে ছাড়পত্র দেখাতে ব্যর্থ হলে দশহাজার টাকা জরিমানা করা হয় তাকে। টাকার জন্য জেলের হুমকি দেওয়া হয়। এসময়ে মজিদআলীর এক প্রতিবেশি উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তার নিকট ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিষটি অবহিত করেন । উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার বিষয়টি সন্দেহ হলে তাদের আটক করার নির্দেশ দেন। পরে এলাবাসী ধাওয়া করে তাদের পাশের মনিরামপুর উপজেলার ঢাকুরিয়া বাজারে আটক করে অভয়নগর থানা পুলিশের হাতে তুলে দেয়।
থানার অফিসার ইনচার্জ তাজুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, এ ঘটনায় প্রাইভেট গাড়ির ড্রাইভার সহ ৫ জনকে আটককরা হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে মামলার প্রস্তুতি চলছে।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *